রুমার কথা | ভালোবাসা কী সত্যিই আমি জানি না

62 / 100

মধ্যবিও সংসার বলতে যা বোঝায় তা হল আমাদের। হ্যাঁ আমি রুমী ,আমার ছোট ভাই , মা , বাবা এই আমাদের ছোট পরিবার। বাবা সরকারী চাকরি করতেন তাই সমস্যা হয় নি তেমন।
কিন্তু কথায় আছে সুখ চিরকাল থাকে না, তাই হল…

সবে কলেজ পাশ করেছি , ভালো ছাএী হওয়ায় একটা চাকরির পরীক্ষা দিতে চাকরি পেলাম , ভাই তখন র্ফাস্ট ইয়ারে পড়ে, বাবা রিটায়ার করেছেন , ভালোই চলছিল।
খুব একটা খারাপ দেখতে ছিলাম না তাই প্রপোস আসত ভালোই কিন্তু আমি ঠিক করেছিলাম মা বাবার পছন্দ করা ছেলেকে বিয়ে করব।

sutapa-halder-p-53

তবে সব খারাপের মধ্যে একটু ভালো থাকে , তাই একটা ভালো ছেলে ছিল, সে সত্যই আমাকে অনেক ভালোবাসত , দেখতে ভালো ছিল না , অহংকার তো একটু ছিল আমার দেখতে ভালো বলে , কোনোদিন তাকে পাত্তা দিনি কিন্তু সে তার মত করে আমাকে ভালোবাসত।

আমি স্কুলের ইংরেজি শিক্ষিকা, সেখানেই একজনকে মনে ধরেছিল ,ভেবেছিলাম মা বাবাকে বলব মনে যখন ধরেছে , ভালো ছিল সে কিন্তু তার বিয়ে ঠিক হয়ে যাওয়ায়, সে সব প্রতিশ্রুতি মিথ্যে করে চলে গিয়েছিল….
আমিও এক রাশ দুঃখ নিয়ে মা বাবার পছন্দ করা ছেলের সাথে বিয়ে করেছিলাম কিন্তু সুখী হয় নি কারণ আমায় যে করেছিল একতরফা প্রেম সে আজও অপেক্ষমান কিন্তু যাকে আমি করেছিলাম প্রেম তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে তাই আগের মত রোজ রাতে ফোন করে কিন্তু আমি বিবাহিত , না পারি স্বামীর ঘর করতে না আমার প্রেমকে মেনে নিতে , এই ভাবে চলছিল…

হঠীৎ একদিন তার সাথে দেখা যাকে আমি বড্ড ভালোবাসি,
সে আমার হাত ধরে বলে –
‘রুমী ক্ষমা কর , ফিরে চল।’
তা আর সম্ভব নয়।

sutapa-halder-p-54

বাড়ি ফিরে দেখি অন্ধকার , ভাবলাম হয়তো ও বাড়ি আসেনি।
কে যেন বলল..
‘বেরিয়ে যাও আমার বাড়ির থেকে,।
‘কিন্তু কেন?’
‘রাস্তায় যে হাত ধরেছিল তার কাছে যাও।’

আমি কোনো কথা বলি নি , সত্যই তো বউ হয়ে স্বামীকে সুখী করতে পারি নি, পুরনো প্রেমকে ভালোবাসি আজও।
সবাই জানলো আমার “affair” আছে।

কিন্তু কেউ সত্যিটা জানল না ,আর আমি বোঝাতেও চায় নি …
বাড়ির থেকে বেরিয়ে সারা রাত স্টেশনে কাটিয়ে দিয়েছিলাম, কখন চোখ লেগে এসেছিল জানি না ,
সকালে ঘুম ভেঙে দেখি আমি একটি বাড়িতে আর সেই চোখ, সেই কন্ট
যে এতবছর আমায় ভালোবেসেছে ,
‘ আমি অফিস দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে তোমায় দেখলাম, তাই আনলাম’ রুমী।

sutapa-halder-p-55

তারপর ওকে সব বললাম কিন্তু ও বন্ধুর মতো পাশে ছিল আজও আছে , এমনকি আমার মা বাবার মৃত্যুর পরও পাশে ছিল।

আমাকে সব রকম স্বাধীনতা দিয়েছে।

ভালোবাসা কী সত্যিই আমি জানি না !
তবে ভালোবাসায় অধিকারের থেকে বন্ধুর মতো আস্থার প্রয়োজন।

আমরা তাই আজ একবছরের বন্ধুত্ব পালন করছি।

Leave a Comment